পুরাতন ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার উপায়

পুরাতন ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে চান? থানায় জিডি করে এবং অনলাইনে রিইস্যুর আবেদন করে পুরাতন ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন।

যারা পূর্বে ভোটার আইডি কার্ড পেয়েছেন তাদের এনআইডি রি-ইস্যুর ফি দিয়ে পুনরায় অনলাইন থেকে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে হবে। এই ব্লগে শেয়ার করলাম পুরাতন আইডি কার্ড বের করার নিয়ম।

Advertisement

অনলাইনের মাধ্যমে শুধুমাত্র নতুন ভোটার গণ জাতীয় পরিচয় পত্রের অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে পারবেন। পুরাতন ভোটারগণ যারা ২০১৬/২০১৭ সালের আগে ভোটার হয়েছেন এবং এনআইডি কার্ড পেয়েছেন তারা অনলাইন থেকে আর ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন না।

নিচের ছবিটি ফলো করুন, যারা এর আগে জাতীয় পরিচয় পত্র পেয়েছিলেন তাদের পুনরায় জাতীয় পরিচয় পত্রের অনুলিপি ডাউনলোড করার জন্য হারিয়ে যাওয়া বা ক্ষতির জন্য ফি দিয়ে রিইসু আবেদন করতে হবে।

Advertisement

আপনি যদি পুরনো ভোটার হয়ে থাকেন কিন্তু এখনো আইডি কার্ড পাননি অথবা ভুলক্রমে ভোটার আইডি কার্ড হারিয়ে ফেলেছেন তাহলে আপনার জন্য এই লেখাটি গুরুত্বপূর্ণ।

এই লেখাটিতে শেয়ার করা হয়েছে অফিসিয়াল পদ্ধতি অনুযায়ী কিভাবে অনলাইন থেকে আবার পুরাতন ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করবেন।

অনলাইন থেকে পুরাতন আইডি কার্ড বের করার নিয়ম

পুরাতন ভোটার আইডি কার্ড বের করার জন্য প্রথমে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র নাম্বার উল্লেখ করে থানায় আইডি কার্ড হারানোর সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করতে হবে। এরপরে services.nidw.gov.bd সাইট থেকে রেজিস্ট্রেশন করে NID কার্ড রিইস্যুর জন্য আবেদন করতে হবে। আবেদন অনুমোদন হলে অনলাইন থেকে এনআইডি কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন।

অনলাইন থেকে পুরাতন আইডি কার্ড বের করার সম্পূর্ণ পদ্ধতি নিচে ধাপ অনুসারে দেখানো হলো:

Advertisement

১. থানায় সাধারণ ডায়েরী করুন

NID Card বা জাতীয় পরিচয়পত্র হারিয়ে বা নষ্ট হয়ে গেলে প্রথমে থানায় আইডি কার্ড হারানো জিডি করতে হবে। থানায় জাতীয় পরিচয়পত্র হারানোর জিডি করতে কোন ফি প্রদান করা লাগে না।

আপনার নাম, জন্ম তারিখ ও NID Number উল্লেখ করে আবেদন লিখতে হবে। হাতে আবেদন পত্র লিখতে পারেন। আবেদনপত্রের এক কপি ফটোকপি করে রাখবেন।

থানায় আবেদনের কপিটি জমা দেওয়ার পরে থানায় দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জিডি করে জিডি নাম্বারটি প্রদান করবে এবং উক্ত কর্মকর্তার সিল ও স্বাক্ষর দিয়ে দিবে।

২. এনআইডি ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রেশন করুন

ভোটার আইডি কার্ড নাম্বার দিয়ে NID ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। যদি আপনার পূর্বে রেজিস্ট্রেশন করা থাকে তাহলে ইউজার নেইম এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করতে হবে।

Advertisement

ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রেশন সম্পূর্ণ করার জন্য আবেদনকারীর Face Verification করতে হবে। ফেইস ভেরিফিকেশেনের জন্য মোবাইলে গুগল প্লেস্টোর থেকে NID Wallet এপ্লিকেশনটি ইনস্টল করে নিন।

  1. NID ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রেশন করার জন্য ভিজিট করুন- ‍জাতীয় পরিচয়পত্রের একাউন্ট রেজিস্টার এই লিংকে।
  2. জাতীয় পরিচয় পত্র নাম্বার ও জন্ম তারিখ বসিয়ে দিয়ে যথাযথভাবে নিচে থাকা ক্যাপচাটি পূরণ করুন।
  3. বর্তমান ঠিকানা ও স্থায়ী ঠিকানা সিলেক্ট করুন। এরপরে Face Verification এর জন্য একটি QR কোড দেখানো হবে।
  4. পূর্বে ইন্সটল করা NID Wallet অ্যাপসটি ওপেন করে QR কোডটি স্ক্যান করুন।
  5. এরপরে ফেইস ভেরিফিকেশন সম্পূর্ণ করার জন্য ক্যামেরা সোজাসুজি একবার ধরুন, এরপরে চোখের পলক ফেলুন। তারপর চোখ ক্যামেরার দিকে রেখে একবার ডানে ও এক বার বামে মাথা ঘোরান।
  6. ফেইস ভেরিফিকেশন সম্পূর্ণ হলে এনআইডি একাউন্টের জন্য একটি পাসওয়ার্ড সেট করুন এবং লগইন করুন।

রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ ছবিসহ দেখুন-

৩. রিইস্যুর আবেদন করুন

পুরাতন ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড

জাতীয় পরিচয় পত্রের ওয়েবসাইটে অ্যাকাউন্ট লগইন করার পরে রিইস্যু লিংকে ক্লিক করুন। তারপর নিচের মত একটি পেইজ আসবে এখান থেকে উপরের ডান পাশে থাকা এডিট বাটনে ক্লিক করুন।

পুরাতন ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড

এরপরে একটি Pop Up Window আসবে এখানে “বহাল” বাটনে ক্লিক করুন।

পরবর্তীতে সঠিকভাবে প্রয়োজনীয় তথ্যগুলো পূরণ করে “পরবর্তী” বাটনে ক্লিক করুন।

৪. রিইস্যু ফি পরিশোধ করুন

পুরাতন ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড

এরপরে দেখতে পাবেন- You have total deposit of 0 BDT। এই পেইজ থেকে আপনাকে জাতীয় পরিচয় পত্র রিইস্যুর ফি জমা দিতে হবে।  জাতীয় পরিচয়পত্র রিইস্যুর আবেদন ফি হলো- ভ্যাট সহ সাধারণ ৩৪৫ টাকা এবং জরুরী ৫৭৫ টাকা।

বিকাশ ও রকেটের মাধ্যমে জাতীয় পরিচয় পত্র রিইস্যুর ফি জমা দিতে পারবেন। ফি পরিশোধের পরে আবেদনের ধরন রিইস্যু ও বিতরণের ধরন Regular বা Urgent দিন।

৫. এনআইডি রিইস্যুর আবেদন সাবমিট করুন

এরপর পরবর্তী বাটনে ক্লিক করে আবেদনকারী GD Scan Copy বা সোজাসুজিভাবে তোলা ছবি আপলোড করুন। ছবিগুলো অবশ্যই স্পষ্ট এবং সম্পূর্ণ ভালো আলোতে হতে হবে।

জাতীয় পরিচয়পত্র হারানো জিডির কপি আপলোডের পরে আপনার আবেদটি সাবমিট করুন। স্বাভাবিকভাবে ৭ থেকে ১৫ দিনের মধ্যে আপনার আবেদনটি অনুমোদিত (Approved) করা হবে।

৬. আইডি কার্ড ডাউনলোড করুন

আপনার আবেদনটি অনুমোদন হলে মোবাইলে SMS এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে। এরপরে এনআইডি ওয়েবসাইট services.nidw.gov.bd এ আইডি নম্বর/ইউজার নেইম ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করুন। প্রোফাইল থেকে ডাউনলোড অপশনে ক্লিক করে পুরাতন ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন।

ডাউনলোডজাতীয় পরিচয় পত্র ডাউনলোড
সংশোধনজাতীয় পরিচয় পত্র সংশোধন
চেকজাতীয় পরিচয় পত্র চেক
হোমপেইজNID BD
Advertisement

Similar Posts

2 Comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।