ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার দরখাস্ত

ই পাসপোর্ট আবেদনে ভুল হওয়ার কারণে আবেদন বাতিল করতে চান? দেখুন কিভাবে পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার দরখাস্ত লিখবেন।

ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার দরখাস্ত

অনলাইনে ই পাসপোর্ট আবেদন করার পর দেখতে পেলেন যে, কোন তথ্যে ভুল করেছেন। অথবা দেখা গেল পাসপোর্ট অফিসে আবেদন জমা দেয়ার পর অফিস থেকে কোন ভুল ধরে আবেদনটি ফেরত দিয়েছে।

Advertisement

এমতাবস্থায় আপনি যদি আবেদনটি বাতিল করতে চান, আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারি পরিচালক বরাবর একটি লিখিত আবেদন করতে হবে।

পাসপোর্ট আবেদন একবার সাবমিট করা হলে আবেদনটি আর সংশোধন করা বা একই এনআইডি দিয়ে নতুন আবেদন করা যায় না। তবে, পাসপোর্ট অফিসে অনুরোধ করে আবেদনটি সংশোধন করিয়ে নিতে পারেন।

একটি গুরুত্বপূর্ণ কথা হলো, যারা আবেদনের সময় অনলাইনে পেমেন্ট করেছেন, আবেদন বাতিল করলে ফি’র চালান ও বাতিল হয়ে যাবে। সেক্ষেত্রে আবেদন বাতিল না করে সংশোধন করিয়ে নিবেন।

Advertisement

এই ব্লগে দেখাবো কিভাবে আপনি ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার দরখাস্ত লিখবেন এবং আবেদন বাতিল করার সুবিধা ও অসুবিধাগুলো সম্পর্কে।

ই পাসপোর্ট অনলাইন আবেদন বাতিল করার নিয়ম

অনলাইনে করা ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার জন্য পাসপোর্ট আঞ্চলিক অফিসের সহকারী পরিচালক বরাবর একটি লিখিত আবেদন করতে হবে। লিখিত দরখাস্তের সাথ সাথে অনলাইন আবেদনের Application Summery পেইজের কপিটি যুক্ত করে দিন। সহকারী পরিচালক সেই দিনই আবেদনটি বাতিল করতে পারেন অথবা ২/১ দিন সময় নিতে পারে।

পাসপোর্ট অফিসে অনেক দালাল আবেদন বাতিল করে দেয়ার জন্য আপনার কাছে টাকা চাইতে পারে। কোন প্রয়োজন নেই দালালকে বাড়তি টাকা দেয়ার। শুধুমাত্র পাসপোর্ট অফিসের সহকারী উপ-পরিচালক বরাবর স্বহস্তে একটি দরখাস্ত লিখে আবেদনটি বাতিল করাতে পারবেন।

Advertisement

আরও পড়ুন- জানুন পাসপোর্ট করতে কি কি লাগে

পাসপোর্ট আবেদনটি অফিসে জমা না দিলে স্বয়ংক্রীয়ভাবে ৬ মাস পার বাতিল হয়ে যাবে। কিন্তু অযথা দীর্ঘ ৬ মাস অপেক্ষা করার কোন মানে নেই। একটি লিখিত আবেদন করেই আবেদনটি বাতিল করিয়ে নিতে পারেন কয়েকদিনের মধ্যে। হয়তো সম্ভব হলে দিনে দিনেই পারবেন। পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার পর আবার শুদ্ধভাবে নতুন আবেদন করতে পারবেন।

ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার দরখাস্ত


তারিখ: . . . . . . . . . . . . . .

বরাবর,
সহকারী পরিচালক,
আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস,
নোয়াখালী।

Advertisement

বিষয়: ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার দরখাস্ত

জনাব,
বিনীত নিবেদন এই যে, আমি (নাম) ……………………, পিতা:……………………., মাতা: …………………….। আমি গত ……../……./………. তারিখে ই পাসপোর্টের একটি জন্য আবেদন করি যার অনলাইন রেজিঃ আইডি নং OID100580**। কিন্তু ভুলবশত আমার পাসপোর্ট আবেদনে আমার (নাম/জন্ম তারিখ/মোবাইল নম্বর/জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর/জন্ম নিবন্ধন নম্বর/অন্য কোন তথ্য) ভুল লেখা হয়। এমতাবস্থায় আবেদনটি বাতিল করে আমি নতুনভাবে আবেদন করতে চাই।

অতএব, মহোদয়ের নিকট বিনীত অনুরোধ এই যে, উপরিউক্ত সমস্যার কথা বিবেচনা করে আমার ই পাসপোর্ট আবেদনটি বাতিল করতে আপনার একান্ত মর্জি হয়।

বিনীত নিবেদক-

(নাম)
গ্রাম, উপজেলা, নোয়াখালী।
মোবাইল- 01814000000

পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করলে কি চালান/পেমেন্ট নষ্ট হবে?

না, পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করলেও চালান বাতিল হবে না। কারণ ই পাসপোর্টের এ চালান করা হয় আপনার এনআইডি বা জাতীয় পরিচয়পত্র ও নাম দিয়ে। এই চালানের মেয়াদ ৬ মাস। তবে যারা অনলাইন আবেদনের সময় ekpay এর মাধ্যমে Online Payment করেছেন তাদের পেমেন্ট চালান বাতিল হয়ে যাবে।

Offline Payment মেথডে অর্থাৎ এ চালান বা ব্যাংক থেকে যারা পাসপোর্ট ফি পরিশোধ করেছেন তাদের চিন্তার কোন কারণ নেই। আপনি পুনরায় ই পাসপোর্ট আবেদন করলে একই চালান জমা দিতে পারবেন।

তবে মনে রাখবেন, পূর্বের আবেদনে পাসপোর্টের মেয়াদ, পৃষ্ঠা ও ডেলিভারীর ধরণ যেমন ছিল, পুনরায় একই ধরণের ই পাসপোর্ট আবেদন করবেন। কারণ, আপনি আগের চালানটিই ব্যবহার করতে যাচ্ছেন।

আরও পড়ুন- পাসপোর্ট সংশোধন করতে কি কি লাগে

শেষকথা

ই পাসপোর্ট আবেদনে ভুল হলে পাসপোর্ট অফিস আপনাকে হয়রানি করার সুযোগ পাবে। তাই পুনারায় আবেদন করতে অভিজ্ঞ কারো সহযোগিতা নিন এবং তথ্যগুলো সঠিকভাবে যাচাই বাছাই করে লিখুন।

আর কখনোই ভুল তথ্য দিয়ে আবেদন জমা দিবেন না। কারণ এর পরিণাম আপনাকেই ভুগতে হবে। পাসপোর্ট এনরোলমেন্ট হওয়ার পর পরবর্তীতে এই ভুল তথ্যের কারণে আপনার পাসপোর্ট প্রিন্ট না হয়ে ফেরত আসতে পারে। পুলিশ ভেরিফিকেশনের সময় পজিটিভ রিপোর্ট না দিতে পারে ইত্যাদি।

এজন্য, তথ্য ভুল থাকলে তা অবশ্যই পাসপোর্ট অফিসে জানাবেন। যদি সম্ভব হয় সেখানে সংশোধন করিয়ে নিবেন। সেটা সম্ভব না হলে, পাসপোর্ট আবেদনটি বাতিল করে পুনরায় নতুনভাবে আবেদন করুন।

FAQs

পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করলে কি পাসপোর্ট ফি’র চালান বাতিল হবে?

না। Offline Payment যেমন ব্যাংক বা এ চালানের মাধ্যমে পাসপোর্টের ফি পরিশোধ করা হলে তা বাতিল হবে না। তবে আবেদনের সময় সরাসরি Online Payment- Ekpay এর মাধ্যমে ফি পরিশোধ করা হলে তা বাতিল হবে। তাই, Online Payment এর ক্ষেত্রে আবেদন বাতিল না করে সংশোধন করুন।

পাসপোর্ট আবেদনে কোন তথ্যে ভুল হলে করণীয় কি?

পাসপোর্ট আবেদনে কোন তথ্যে ভুল হলে করণীয় হচ্ছে, লিখিত আবেদন করে পাসপোর্ট অফিসের মাধ্যমে ভুল সংশোধন করা। যদি সংশোধন করা না যায়, আবেদনটি বাতিল করে নতুনভাবে আবার অনলাইনে আবেদন করা।

Advertisement

Similar Posts

14 Comments

  1. আমি এ-চালানের মাধ্যমে পাসপোর্টের ফি জমা দেয়ার সময়, যে ব্যক্তির মাধ্যমে প্রদত্ত হলো এবং যে ব্যক্তির পক্ষ হতে প্রদত্ত হলো ২জায়গায় ই আমার মামার নাম চলে আসে, যেহেতু মামার একাউন্ট থেকে পে করা। এখন আমার কি বেশি সমস্যা হবে??নাকি চলবে এই চালান দিয়ে।। আর এ-চালান থেকে কি রিফান্ড পাওয়া যাবে?যদি ভুল হয়

    1. যার পাসপোর্ট তার পক্ষ থেকে প্রদত্ত হতে হবে, তা না হলে পাসপোর্ট আবেদনে এটি ব্যবহার করা যাবে না। পেমেন্ট করার সময় ভুল করেছেন মনে হয়। রিফান্ড নেয়া যাবে না।

  2. আমি পাসপোর্টের আবেদন করার সময় অনলাইন পেমেন্ট করেছি। আবেদন জমা দেয়ার পর একজন এসআই আমাকে ফোন দিয়ে বললেন আমার স্থায়ী ঠিকানায় আরও কিছু তথ্য যোগ করতে হবে। এক্ষেত্রে আমাকে তিনি পাসপোর্ট অফিসে গিয়ে আবেদন করতে বলেছেন। আমার কি আবেদন ক্যান্সেল হবার চান্স আছে? বা কোনভাবে টাকা আবার দিতে হতে পারে? নাকি শুধু আবেদন করলেই হয়ে যাবে?

  3. ফাইনাল সাবমিট না করে কত দিন রাখা যাবে, একদিন পরে কি এডিট করা বা ভুল হলে পুরা আবেদন ডিলিট করা নতুন ভাবে করা যাবে।

  4. আমি আমার এনআইডি দিয়ে এ চালান করেছি।কিন্তু আমার এ চালানে ডাকঘর যা আছে তা ই-পাসপোর্ট আবেদনে নাই। এখন কি এ চালান টি বাতিল হবে?

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।